মুচলেকায় জামিন পেলেন মালয়েশিয়ার সাবেক প্রধানমন্ত্রী

0
147

ওয়ানএমডিবি দুর্নীতি মামলায় মালয়েশিয়ার সাবেক প্রধানমন্ত্রী নাজিব রাজাককে জামিন দিয়েছেন আদালত। বুধবার (৪ জুলাই) বিচারক মুহাম্মদ সুফিয়ান আবদুল রাজাক দুই লাখ ৪৭ হাজার ডলারের মুচলেকায় নাজিবের জামিন আবেদন মঞ্জুর করেছেন।

এদিকে অর্থ জমাদান ছাড়া নাজিব রাজাকের কূটনৈতিক পাসপোর্ট জমা দেওয়ার নির্দেশ দিয়েছেন আদালত।

আদালতে নাজিবের পক্ষে ছিল সাত সদস্যের একটি আইনজীবী দল। এতে নেতৃত্ব দেন জ্যেষ্ঠ আইনজীবী মুহাম্মদ শাফি আবদুল্লাহ। সরকার পক্ষে ছিলেন নবনিযুক্ত অ্যাটর্নি জেনারেল টমি টমাসের নেতৃত্বে ১২ সদস্যের একটি প্রসিকিউটর দল।

রাষ্ট্রায়ত্ত বিনিয়োগ তহবিল ওয়ান মালয়েশিয়া ডেভেলপমেন্ট বেরহাদের (ওয়ানএমডিবি) অর্থ আত্মসাতের অভিযোগ তদন্তের দায়িত্বে থাকা টাস্কফোর্সের কর্মকর্তারা মঙ্গলবার বিকালে কুয়ালালামপুরের বাসা থেকে তাকে গ্রেফতার করেন। গ্রেফতারের একদিনের মধ্যেই তার বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন করে আদালত।

এদিকে আদালতে অভিযোগের শুনানিকালে নাজিব নিজেকে নির্দোষ বলে দাবি করেন। তার বিরুদ্ধে আনা চারটি অভিযোগের প্রতিটিতে সর্বোচ্চ ২০ বছর পর্যন্ত কারাদণ্ড হতে পারে ধারণা করা হচ্ছে।

২০১৫ সালে একটি প্রতিবেদনে ওয়াল স্ট্রিট জার্নাল জানিয়েছে, ২০১৩ সালে নাজিব ৬৮ কোটি ১০ লাখ ডলার পেয়েছিলেন। প্রাথমিকভাবে অস্বীকার করলেও পরে নাজিব স্বীকার করেন যে, সৌদি আরবের রাজপরিবারের কাছ থেকে ‘ব্যক্তিগত অনুদান’ হিসেবে এই অর্থ পাওয়া যায়।

ওয়ানএমডিবি নামের একটি রাষ্ট্রীয় বিনিয়োগ তহবিলের দুর্নীতির তদন্তের অংশ হিসেবে এগুলো জব্দ করা হয়। জব্দ করা সম্পদের মধ্যে রয়েছে ১৬ লাখ ডলার মূল্যের স্বর্ণ এবং হীরার নেকলেস, ১৪টি টায়রা, ১৪০০ নেকলেস, ৫৬৭ হ্যান্ডব্যাগ, ৪২৩টি ঘড়ি, ২২০০টি আংটি, ১৬০০ ব্রোচ এবং ২৩৪টি সানগ্লাস। পুলিশ বলছে, মালয়েশিয়ার ইতিহাসে একবারে এত বিপুল পরিমাণ মূল্যবান সামগ্রী কখনো বাজেয়াপ্ত হয়নি।

মালয়েশিয়ার আদালত প্রধানমন্ত্রী নাজিবকে অর্থ কেলেঙ্কারির অভিযোগ থেকে মুক্তি দিয়েছিল। কিন্তু গত মে মাসের নির্বাচনে সরকার বদলের পর নতুন প্রধানমন্ত্রী মাহথির মোহাম্মদ ক্ষমতায় এসে নতুন করে ওই দুর্নীতি তদন্তের নির্দেশ দেন। এরপর মালয়েশিয়ার দুর্নীতি দমন বিভাগের কর্মকর্তারা নাজিব রাজাকের বাসায় কয়েক দফা তল্লাশি চালিয়ে বিদেশি মুদ্রা ও বিলাসপণ্য জব্দ করে।

মাহাথির এবং তার সরকারের ঊর্ধ্বতন নেতাদের বিশ্বাস, নাজিব রাজাক যে ওয়ানএমডিবি ফান্ডের অর্থ আত্মসাৎ করেছেন তার অকাট্য প্রমাণ রয়েছে। এদিকে, মার্কিন প্রসিকিউটররা বলছেন, ৭০ কোটি ডলার অর্থ সাবেক প্রধানমন্ত্রীর একাউন্টে জমা হয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here