ফাঁস হলো শ্রাবন্তী সম্পর্কে গোপন এই ১০ টি তথ্য! জানেন কি?

0
245

বিয়ে ভেঙে যাওয়া নিয়ে কষ্টেও ছিলেন।

বহুদিন একা ছিলেন। আবার নতুন করে ঘর বাঁধতে চলেছেন টলিপাড়ার মিষ্টি মেয়ে শ্রাবন্তী। দেখে নিন এই সুন্দরী নায়িকার দশটি অজানা তথ্য।

১) জন্মদিন ১৩ অগস্ট, ১৯৮৭। উচ্চতা ৫ ফুট ৪ ইঞ্চি।

২) শ্রাবন্তীর প্রথম ছবি স্বপন সাহার ‘মায়ের বাঁধন’, ১৯৯৭ সালে। সেই ছবিতে হেভিওয়েট নায়ক-নায়িকা ছিলেন প্রসেনজিৎ, শতাব্দী রায় এবং ঋতুপর্ণা সেনগুপ্ত। শিশু চরিত্রে অভিনয় করেছিলেন শ্রাবন্তী।

৩) প্রথম বড় হিট ২০০৩ সালের ‘চ্যাম্পিয়ন’। রবি কিনাগি-র এই ছবিটি ‘জো জিতা ওহি সিকন্দর’-এর বাংলা সংস্করণ। নায়ক ছিলেন জিৎ।

৪) ২০০৩ সালেই বিয়ে করেন রাজীব বিশ্বাসকে। এখন পরিচালক রাজীব, তখন অ্যাসিস্ট্যান্ট ডিরেক্টর হিসেবে কাজ করতেন ইন্ডাস্ট্রিতে। শ্রাবন্তীর বয়স তখন মাত্র ১৫।

৫) বিয়ের পরেই সিনেমার জগৎ থেকে সরে আসেন শ্রাবন্তী। পাঁচ বছর পরে ফেরেন রবি কিনাগীর ‘ভালোবাসা ভালোবাসা’ ছবিতে।

৬) শ্রাবন্তী এবং রাজীবের ডিভোর্স নিয়ে ইন্ডাস্ট্রিতে প্রচুর কানাঘুষো শোনা যায়।

অনেকে বলেন, দেব-এর সঙ্গে শ্রাবন্তীর বন্ধুত্ব নিয়েই নাকি দু’জনের মধ্যে অশান্তি শুরু হয়। যদিও রাজীবও নাকি বিবাহ-বহির্ভূত সম্পর্কে ছিলেন বলে অভিযোগ ওঠে।

৭) শ্রাবন্তী হলেন সেলফি কুইন। মুহুর্মুহু সেলফি তোলেন এবং আপলোড করেন সোশ্যাল মিডিয়া প্রোফাইলে। তাছাড়া তিনি প্রায় প্রতি ৪৮ ঘ্ণ্টায় হোয়াটসঅ্যাপে ডিপি পরিবর্তন করেন।

প্রথমটিতে নায়ক সোহম, দ্বিতীয়টিতে শাকিব খান।

৮)শ্রাবন্তীর ডিভোর্সের পরেই ব্যবসায়ী বিক্রম শর্মার সঙ্গে তাঁর সম্পর্কের কথা সংবাদমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়ে। তবে শ্রাবন্তী এক সাক্ষাৎকারে জানিয়েছিলেন বিক্রমের সঙ্গে তাঁর সম্পর্ক বন্ধুত্বের এবং তাঁকে বিয়ে করা নিয়ে তিনি কিছু ভাবছেন না।

৯) শ্রাবন্তীর জীবনের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ মানুষ কিন্তু ওঁর ছেলে ঝিনুক। তাঁর কাছেই থাকে শ্রাবন্তীর কাছেই থাকে সে।

১০) কৃষাণ ব্রজকে বিয়ে করেন চলতি মাসে।

আরো পড়ুনঃ
শাকিব ভক্তদের উচ্ছ্বাস

সোশ্যাল মিডিয়ায় বাংলা চলচ্চিত্রের জনপ্রিয় নায়ক শাকিব খানের তেমন উপস্থিতি নেই। ফেসবুকে নিজের নামে পেইজ থাকলেও সেটা নিয়ন্ত্রণ করেন ভক্তরা।

এদিকে ফেসবুকে শাকিব খানকে নিয়ে ছোট খাট অনেকগুলো গ্রুপ থাকলেও শাকিব খান নিজে ওয়াকিবহাল রয়েছেন SHAKIB KHAN (THE KING OF DHALLYWOOD) নামের গ্রুপ সম্পর্কে। যেখানে শাকিব খানের সাথে ব্যক্তিগত পরিচয় রয়েছেন এমন কিছু ভক্ত গ্রুপটি সঞ্চালনা করেন।

এই গ্রুপের সদস্য সংখ্যা ৫ লাখ অতিক্রম করেছে। পেইজের পর গ্রুপেও এতো সদস্যের সম্মিলন হওয়ায় ভক্তরা আনন্দ প্রকাশ করেছে। উচ্ছ্বসিত হয়ে গ্রুপ ওয়ালে লিখেছেন, ‘আজ সুপারস্টার শাকিব খান এর একমাত্র অফিসিয়াল গ্রুপ ৫ লক্ষের বিশাল বড় সদস্যের মাইলফলক স্পর্শ করেছে। গ্রুপের বয়স এখনো দুই বছর পরিপূর্ণ হয়নি এতো কম সময়ে এতো বড় সদস্যের গ্রুপ সত্যিই অবিশ্বাস্য। এটা সম্ভব হয়েছে আপনাদের জন্য, গ্রুপের প্রত্যেকটি সদস্যদের জন্য। আপনারাই গ্রুপ কে এগিয়ে নিয়েছেন। ‘

সোশ্যাল মিডিয়ায় শাকিবকে যারা সক্রিয় রেখেছেন এরা হলেন, প্রিন্স মিফতাহ, আব্দুর রহমান হাবিবুর,আহাদ রাজিব, রাজন আহমেদ মৃধা, আরাফাত হোসেন অনিক, সায়েদ রেজা, ফারহান আমির, মোঃ লিখন হোসেন, ফয়সাল খান, জাহিদ হাসান, খান বিপুল, আপন আহমেদ।

ভক্তদের বক্তব্য, শাকিব এদেশের চলচ্চিত্রকে অন্য উচ্চতা নিয়ে যাচ্ছেন। আমরা তার ভক্ত হিসেবে তাঁর কাজ সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে দিতে চাই।

আরো পড়ুনঃ
নারী ক্রিকেটারদের কোচ হবেন ফেরদৌস!

নারী ক্রিকেটার জাহানারা-শুকতারাদের জীবন-সংগ্রাম নিয়ে চলচ্চিত্র নির্মাণ করতে যাচ্ছেন ফেরদৌস। সম্প্রতি গণমাধ্যমে এ কথা জানালেন এ নায়ক।

ঢাকাই ছবির জনপ্রিয় নায়ক ফেরদৌস। চলচ্চিত্র নিয়ে এখনও ব্যস্ততা তার। এবার বাংলাদেশ নারী ক্রিকেট দলের প্রধান কোচের দায়িত্ব পালন করবেন তিনি। তবে এটা বাস্তবে নয়, সিনেমার পর্দায়।

ফেরদৌস বলেন, ‘আমার খুব ইচ্ছা আছে বাংলাদেশের মেয়েদের ক্রিকেট টিম নিয়ে একটি সিনেমা করার। অবশ্য এর পেছনে কয়েকটা কারণও আছে। প্রথমত আমি ক্রিকেটার চরিত্রে চাইলেই এখন সিনেমা করতে পারবো না, কারণ আমার ওই বয়স আর নেই। আর সেটি করতে গেলে আমার জন্য অনেক বেশি টাফ হয়ে যাবে। দ্বিতীয়ত, এই মেয়েদের জীবন সংগ্রামের গল্প আমি খুব কাছ থেকে শুনেছি। বিটিভিসহ বেশ কয়েকটি চ্যানেলে আমি অনেকবার তাদের সঙ্গে বিভিন্ন অনুষ্ঠানে দেখা হয়েছে। আমি যে গল্পগুলো শুনেছি তা আমাকে ছুঁয়ে গেছে। ওরা একেকজন ফাইটার। এতো যুদ্ধের পরও তারা বিশ্ব মানচিত্রে বাংলাদেশকে ঠিকই জিতিয়ে নিয়ে এসেছে। তো আমার কাছে মনে হয় ওদের জন্য ডেডিকেশন দিয়ে হলেও একটি সিনেমা আমাদের বানানো উচিত।’

ফেরদৌস আরও বলেন,‘বিশেষ করে এই এগারোটা মেয়ের ক্রিকেট জীবন নিয়ে একটা স্টোরি এবং তাদের কোচ হিসেবে যদি আমি কাজ করতে পারি সেটি আমার জন্য হতে পারে দারুণ কিছু। এ ব্যাপারে যে কেউ এগিয়ে আসতে পারেন, আমি সবসময় তৈরি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here