শান্তিপূর্ণ আন্দোলন এখন প্রশ্নবিদ্ধ

0
192

দেশইনফো ডেস্ক: আওয়ামী লীগের ধানমন্ডি ৩/এ সভানেত্রীর কার্যালয়ে ইট পাটকেল লাঠিসোটা নিয়ে হামলা করেছে অজ্ঞাতরা। বিকেলে আকস্মিক এ ঘটনা ঘটে। এসময় কমপক্ষে ৫০ টা গাড়ি ভাংচুর করে স্কুল ড্রেসে আসা অজ্ঞাতরা।

একইভাবে রাষ্ট্রদূতের উপর হামলা, জাতিসংঘের গাড়ি ভাংচুর করেছে স্কুলের ড্রেস পড়া বয়স্ক শিক্ষার্থীরা। তাই অনেকের মনেই এখন একটাই প্রশ্ন শান্তিপূর্ণ আন্দোলনকে প্রশ্নবিদ্ধ করছে কারা এরা?

বিশ্লেষকদের অনেকেই মনে করছেন এ আন্দোলনে এখন আর স্কুল শিক্ষার্থীদের আন্দোলন নেই। যারা আছেন তারা সব বিএনপি-জামাত-শিবিরের কর্মীবাহিনী। এর প্রমাণ হিসেবে সামাজিক যোগাোযাগ মাধ্যমে একাধিক প্রমাণ দিয়েছেন অনেকে। পাঠকদের জন্য এখানে একটি অডিও ক্লিপ যুক্ত করা হলো। এই অডিওটিতে বিএনপি নেতা আমির খসরু মাহমুদ একজনকে বলছেন মিজানুর রহমান, ডাক নাম নাওমির সাথে। নাওমি লন্ডনে পড়াকালীন তারেক রহমানের সাথে তার গভীর সম্পর্ক গড়ে ওঠে, যার বাড়ী কুমিল্লা জেলায়।

লিংক:

 

https://www.facebook.com/bappy.rahman.35/videos/10156010680149355/

অন্যদিকে নাশকতার মামলার আসামি ডেমরা শিবির নেতা রাসেলের মা ও ভাইকে আন্দোলনে দেখা গেছে। তিনি অন্যসব শিক্ষার্থীদের খিচুরী খাওয়াচ্ছেন। ছবি:

এদিকে রাজশাহী-০৫ আসনে বিএনপির মনোনয়ন প্রত্যাশী, জেলা বিএনপির বর্তমান সদস্য মুসলিমলীগের সাবেক চেয়ারম্যান কুখ্যাত রাজাকার আয়েন উদ্দীনের কন্যা মাহবুবা হাবিবা নিজ বাচ্চার হাতে একটি পোস্টার তুলে দেন, যাতে অশ্লীল ভাষা ব্যবহার করা হয়েছে।

ছবি:

একইভাবে, একদল বয়স্কদের শ্লোগান দিতে দেখা যাচ্ছে যে আমার ভাইয়ের রক্ত লাল, শেখ হাসিনা কোন চ্যাটের বাল। শ্লোগানটি দিচ্ছে টাঙ্গাইল জেলা ছাত্রদলের কর্মীরা।
লিংক:

 

গত বৃহস্পতিবার রাত থেকেই শিক্ষার্থীদের যৌক্তিক দাবির আড়ালে অন‍্য কেউ সুবিধা আদায়ের চেষ্টা করছে কি না- এ নিয়ে প্রশ্ন তোলে বিভিন্ন মহল।
সেই আলোচনার ইতি টানতে না টানতেই যুক্ত হলো আরো একটি ঘটনা।

অভিভাবক ও সম্মানিত শিক্ষকদের কাছে তাই বেশিরভাগ মানুষের আবেদন যে, আন্দোলন তার আসল রুপ ও সৌন্দর্য হারিয়েছে। কোমলমতি এসব শিশু শিক্ষার্থীদের ঘরে ফেরানোর উদ্যোগ নেয়ার জন্য অনুরোধ জানিয়েছেন সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রী ওবায়দুল কাদের, বাণিজ্য মন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ, শাহরিয়ার আলম, তারানা হালিম, সাকিব আল হাসানসহ বিশিষ্টজনেরা।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here