সরকারকে তিন দিনের আল্টিমেটাম সাংবাদিকদের

0
353
সাংবা‌দিক‌দের উপর হামলাকারী‌দের গ্রেফতার ও শা‌স্তির দা‌বি জা‌নি‌য়ে  সরকারকে তিন দিনের আল্টিমেটাম দিয়েছে সাংবা‌দিক নেতারা।
সাংবা‌দিক‌নেতারা ব‌লেন, সরকার যদি ৭২ ঘণ্টার মধ্যে দৃশ্যমান কোনো পদক্ষেপ না নেন। তাহলে শনিবার (১১ আগস্ট) সাংবাদিক নির্যাতনের প্রতিবাদে সারাদেশে একযোগে বিক্ষোভ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হবে।
মঙ্গলবার (০৭ আগস্ট) সকাল ১১টায় জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনেঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়ন (ডিইউজ)আমরা সাংবাদিক ব্যানারে দায়িত্ব পালনকালে সাংবাদিকদের উপর হামলা ও নির্যাতনের প্রতিবাদে বিক্ষোভ সমাবেশ নেতা রা া‌েকেথা লেন।
সমা‌বে‌শে বাংলাদেশ সাংবাদিক ইউনিয়নের সভাপতি মোল্লা জালাল বলেন কোমলমতি শিক্ষার্থীদের শান্তিপূর্ণ আন্দোলনে রাজনৈতিক দুর্বৃত্তরা অনুপ্রবেশ করে সাংবাদিকদের উপর হামলা করেছে যেটা দেখে সারা জাতির আজ লজ্জায় মাথা হেট হয়ে গেছে।
এসময় তিনি মন্ত্রীদের উদ্দেশ্য করে বলেন, আপনাদের দায়িত্বশীল হতে হবে। সাংবাদিকদের উপর হামলার ঘটনায় কোনো পদক্ষেপ না নিলে এর ফল ভালো হবে না। সাংবাদিক সমাজ এই ঘটনার এ ঘটনার কঠিন জবাব দিতে প্রস্তুত আছে।
বাংলাদেশ সাংবাদিক ফেডারেল ইউনিয়ন (বিএফইউজ) এর সাবেক সভাপতি মনজুরুল ইসলাম বুলবুল বলেন, কলম সৈনিক সাংবাদিকদের উপর আক্রমণ করে দুর্বৃত্তরা কার  গুজব ছড়ানো কারীদের পক্ষ নিয়েছে। আমরা পেশাদারিত্বের সাথে আমাদের দায়িত্ব পালন করতে চাই। আপনারা আমাদেরকে কাজ করতে দিন, আমাদেরকে সঠিক তথ্য পরিবেশন করতে দিন। যারা আমাদের পেশাদারিত্ব সাথে তা করতে দিতে চায় না। আমরা মনে করি তারা সাংবাদিকদের শত্রু।
ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটি (ডিআরইউ) সভাপতি সাইফুল ইসলাম বলেন, আমরা দেখেছি শান্তিপ্রিয় এই আন্দোলনে সাংবাদিকরা যখন সংবাদ সংগ্রহ গেছে তাদেরকে টার্গেট করে সে বেছে বেছে হামলা করেছে দুর্বৃত্তরা‌। আমরা এদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি চাই। কারা হামলা করেছে প্রশাসন তাদের কে দেখেছে তাদের ছবি টিভিতে অনলাইনে সব জায়গায় ছড়িয়ে আছে কিন্তু তাদেরকে গ্রেফতার করা হচ্ছে না এটা দুঃখজনক।
বাংলাদেশ সাংবাদিক ইউনিয়নের নব-নির্বাচিত মহাসচিব শাবান মাহমুদ বলেন, এই গণতান্ত্রিক দেশেই এই গণতান্ত্রিক সমাজ ব্যবস্থায় সাংবাদিকদের উপর এমন নগ্ন হামলা মেনে নেওয়া যায় না। মন্ত্রীরা বলছেন আপনারা আমাদেরকে তালিকা দিন আমরা তাদেরকে গ্রেফতার করবো। কিন্তু আমরা বলব আমরা কেন তাদের তালিকা দিবো তাদের ছবি অনলাইনে আছে আপনাদের কে দেখে তাদেরকে গ্রেফতার করে আইনের আওতায় নিয়ে আসুন। আমরা বিশ্বাস করি জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে সাংবাদিকদের ওপর হামলাকারীদের বিচার হবে। আর যদি এটা বন্ধ না হয় তাহলে আমাদের সাংবাদিক সমাজ বসে থাকবে না। এর বিরুদ্ধে প্রতিরোধ গড়ে তুলবে।
সভাপতির বক্তব্যে ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়নের সভাপতি আবু জাফর সূর্য বলেন, আপনারা কি পত্র পত্রিকা পড়েন না, আপনারা কি সংবাদ দেখেন না আপনারা এখনও পর্যন্ত আহত সাংবাদিকদের কোন খোঁজখবর নিলেন না। তথ্যমন্ত্রী আপনার কাজটা কি, আপনি এখন পর্যন্ত আহত সাংবাদিকদের খোঁজ নিতে পারলেন না এ ঘটনার তীব্র নিন্দা জানাই। আমরা বিএনপির শাসনামলে অনেক মার খেয়েছি কিন্তু তখন আমরা বিচার চাই নি। আমাদের শ্লোগান ছিল বিচার চাই না কারণ আমরা বিচার পাই না তাই।
নিরাপদ সাংবাদিকতা চাই, কণ্ঠরোধ নয়, চাই মত প্রকাশের স্বাধীনতা এই স্লোগানকে সামনে রেখে বিক্ষোভ সমাবেশে একাত্মতা প্রকাশ করেন, বাংলাদেশ ফটোজার্নালিস্ট অ্যাসোসিয়েশন, ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিট, বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়ন এবং স্টামফোর্ড ইউনিভার্সিটির গণমাধ্যম ও সাংবাদিক বিভাগের শিক্ষার্থীরা।
এ সমাবেশে ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়নের সভাপতি আবু জাফর সূর্যের সভাপতিত্বে আরো বক্তব্য রাখেন, সাংবাদিক নেতা রাজু আহমেদ, মিনু, আক্তার হোসেন, আতিকুর রহমান চৌধুরী, সোহেল হায়দার চৌধুরী, সৈয়দ এস্তার রেজা, ফটো অ্যাসোসিয়েশনের নেতা কাজল হাজরা, ফরিদা ইয়াসমিন সহ বিভিন্ন পর্যায়ের নেতৃবৃন্দ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here