বড়াইগ্রামে ছাত্রীকে মারপিট বখাটেদের বিচারের দাবীতে মানববন্ধন

0
203
নাটোর প্রতিনিধি : নাটোরের বড়াইগ্রামে আহম্মেদপুর বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের নবম শ্রেণীর এক ছাত্রীকে কু-প্রস্তাবে রাজী না হওয়ায় রাস্তায় ফেলে মারপিটের অভিযোগ উঠেছে। নির্যাতিত ছাত্রীটি থানায় মামলা করলে করলে উল্টো প্রাণনাশের হুমকি দিচ্ছে ঐ যুবক ও তার স্বজনেরা।
বৃহস্পতিবার সকালে মারপিটের শিকার ছাত্রীর স্কুলের সহপাঠীরাসহ পাশর্^বর্তী শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষক-কর্মচারী ও শিক্ষার্থীরা অভিযুক্ত যুবককে আটক ও দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি প্রদানসহ রাস্তাঘাটে যৌন হয়রানী বন্ধের দাবী জানিয়েছেন। এদিকে, মানববন্ধনের পর বিকালে অভিযুক্ত আরশেদ আলীকে আটক করেছে পুলিশ।
স্থানীয়রা জানান, উপজেলার বৃ-কাচুটিয়া গ্রামের আবুল কালামের ছেলে দুই সন্তানের জনক আরশেদ আলী (৩৫) বেশ কিছুদিন থেকে মেয়েটিকে কু-প্রস্তাব দেয়াসহ নানাভাবে উত্যক্ত করে আসছিল। গত ২ আগষ্ট সকালে ঐ মেয়েটি বিদ্যালয়ে আসে। কিন্তু শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের ঘোষিত আকস্মিক ছুটিতে বিদ্যালয় বন্ধ থাকায় সে বাড়ি ফিরে যাচ্ছিল। পথে কান্দাইল প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সামনে পৌঁছলে আরশেদ আলী তাকে পুনরায় কু-প্রস্তাব দেয়।
কিন্তু মেয়েটি তাতে রাজি না হলে সে প্রকাশ্যে রাস্তার উপরে মেয়েটিকে যৌন হয়রানী করে। এ সময় মেয়েটি প্রতিবাদ করলে আরশেদ তাকে বেধড়ক মারপিট করে। পরে পথচারীরা এগিয়ে এলে সে পালিয়ে যায়। এ ঘটনায় পরে মেয়েটি বাদী হয়ে থানায় মামলা করলে আরশেদ ও তার স্বজনরা প্রাণনাশের হুমকির মুখে মেয়েটির স্কুলে যাওয়া বন্ধ হয়ে গেছে।
এ ব্যাপারে বড়াইগ্রাম থানার উপ-পরিদর্শক তহসেনুজ্জামান জানান, বৃহস্পতিবার বিকালে অভিযুক্ত আরশেদকে আটক করা হয়েছে। মেয়েটিকে হুমকি দেয়া অন্যদেরও আটকের চেষ্টা চলছে। এ ব্যাপারে মেয়েটিকে যথাযথ নিরাপত্তা দেয়া হবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here