আওয়ামী লীগ গণতান্ত্রিক প্রক্রিয়ায়ই সবসময় ক্ষমতায় এসেছে : ওবায়দুল কাদের

0
146

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, আওয়ামী লীগ যতবার ক্ষমতায় এসেছে আন্দোলন সংগ্রাম করে গণতান্ত্রিক প্রক্রিয়ায় নির্বাচনের মাধ্যমে ক্ষমতায় এসেছে। আওয়ামী লীগ সমৃদ্ধির উপর জোর দিয়েছে, গণতন্ত্র আছে বলেই এ সমৃদ্ধি হচ্ছে।
মঙ্গলবার নোয়াখালী-৩ আসনের বেগমগঞ্জ উপজেলার চৌরাস্তায় আওয়ামী লীগ প্রার্থী মামুনুর রশিদ কিরণের পক্ষে আয়োজিত এক পথসভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে ওবায়দুল কাদের এসব কথা বলেন।

এসময় জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ডা. এ বি এম জাফর উল্লাহ, চৌমুহনী, পৌর মেয়র আকতার হোসেন ফায়সালসহ আওয়ামী লীগ ও সহযোগী সংগঠনের নেতা-কর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, ১৯৭৫ সালে বঙ্গবন্ধুকে হত্যার পর অনেক আন্দোলন সংগ্রাম করে গণতন্ত্রের মাধ্যমে আমরা ক্ষমতায় এসেছি। বিকল্প কোন পথে আমরা ক্ষমতা চাই না। আমরা রাজনীতি করি গণমানুষের জন্য।

ওবায়দুল কাদের আগামী নির্বাচনে নৌকা প্রতীকে ভোট দিয়ে আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনাকে সন্মানিত করার জন্য জনগণের প্রতি আহ্বান জানান।
তিনি বলেন, কাজ যারা করেছে তাদের ভুল হতে পারে। যদি কোন নেতা-কর্মীর আচরণে কষ্ট পেয়ে থাকেন তাদের ভুল-ত্রুটি ক্ষমা সুন্দর দৃষ্টিতে দেখবেন। আমরা ভুল সংশোধন করবো, অতীতের ভুল থেকে শিক্ষা নেবো। আগামীবার নির্বাচিত হলে প্রতিটি ঘরে ঘরে গ্যাস সংযোগ দেয়া হবে। এখানকার যানজট নিরসনে ফ্লাই ওভার নির্মাণ করা হবে।

খাবার বিতরণ নিয়ে ছাত্রলীগ দু’পক্ষের সংঘর্ষ, কুপিয়ে জখম

ঝালকাঠি-২ আসনের নৌকা প্রতীকের উঠান বৈঠন শেষে খাবার বিতরণকে কেন্দ্র করে ছাত্রলীগের দু পক্ষের সংঘর্ষের ঘটনায় জাকি মুজাহিদ সাকবি (২০) নামে এক কর্মীকে কুপিয়ে জখম করার অভিযেগ উঠেছে। গত সোমবার সন্ধ্যায় পৌর শহরের পূর্ব চাঁদকাঠি জাতীয় নিরাপত্তা গোয়েন্দা সংস্থা (এনএসআই) জেলা অফিসের সামনে এ ঘটান ঘটে। শাকিব বর্তমানে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতলে ভর্তি আছে। স্বজনরা জানিয়েছ তার অবস্থা আশঙ্কাজনক।

দলীয় সূত্রে জানা গেছে, গত সোমবার বিকেলে শহরের পূর্ব চাঁদকাঠিতে নৌকা প্রতীকের উঠান বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। নৌকার প্রার্থী শিল্পমন্ত্রী আমির হোসেন আমু প্রধান অতিথির বক্তব্য শেষ করে পার্শ্ববর্তী এবায়দুল্লাহ মসজিদে নামাজের উদ্দ্যেশে যান। এ সময় উঠান বৈঠকস্থলে খাবার বিতরন চলছিল। তখন উঠতি বয়সী ছাত্রলীগের কর্মীদের সাথে শহর ছাত্রলীগের সাধারন সম্পাদক জুবায়ের হোসেনের সাথে প্রথমে কথা কাটাকাটি হয়। পরে লাঠি ও জিআই পাইপ নিয়ে দুপক্ষ সংঘর্ষে জড়িয়ে পরে।

এতে জেলা ছাত্রলীগের সদস্য ও জেলা জজ আদালতের কর্মচারী জাহাঙ্গীর হোসেনের ছেলে শাকিবের মাথায় ধারালো অস্ত্রে আঘাত লাগে। এ সময় চাঁদকাঠি এলাকা রনক্ষেত্রে পরিনত হয়। এ সময় ৫/৬ জন ছাত্রলীগ কর্মী আহত হয়। আহতদের মধ্যে গুরুতর আহত শাকিবকে তাৎক্ষনিক বরিশাল শেবাচিম হাসপাতালে পরে রাতে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকা মেডিকেলে নিয়ে যায় স্বজনরা। সংঘর্ষের ঘটনায় জড়িয়ে পরা সকলেই পৌর কাউন্সিলর ও যুবলীগ নেতা হাফিজ আল মাহমুদের অনুসারি। আহত সাকিব জেলা ছাত্রলীগের সদস্য।

জাহাঙ্গীর হোসেন বলেন , আমার ছেলের অবস্থার ভালো না। সে ঢাকা মেডিকেল চিকিৎসাধীন আছে।

পৌর কাউন্সিলর হাফিজ আল মাহমুদ জানান , নিজেদের মধ্যে সামান্য বিষয় নিয়ে এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। বর্তমানে শাকিবের অবস্থা সঙ্কটাপন্ন।

জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি সফিকুল ইসলাম বলেন , সাকিবকে যারা কুপিয়ে জখম করেছে তারা ছাত্রলীগের অনুপ্রবেশকারী একসময়ের ছাত্রশিবিরের সক্রিয় কর্মী। এ ঘটনার বিচার ও তীব্র নিন্দা জানাই।

এ ব্যাপারে ঝালকাঠি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা শোনিত কুমার গায়েন জানান, খাবার বিতরণ নিয়ে দু-পক্ষের মধ্যে ধস্তাধস্তির ঘটনা ঘটে। সেখানে পুলিশ উপস্থিত হয়ে নিয়ন্ত্রণে আনে। এর মধ্যে শাকিব নামের একজন আহত হয়েছে। তদন্ত সাপেক্ষে পরবর্তী আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here