স্বাস্থ্যসেবায় মুসলিম বিশ্বের সেরা কাতার

0
248
স্বাস্থ্যসেবায় মুসলিম বিশ্বের সেরা কাতার

স্বাস্থ্যসেবার গুণগতমানের দিক দিয়ে মুসলিম বিশ্বের শীর্ষে অবস্থান করছে কাতার। বিশ্বের অন্যতম প্রাচীন মেডিকেল জার্নাল দ্য লানসেটের এক গবেষণা জরিপে এ চিত্র উঠে এসেছে। বুধবার প্রকাশিত ওই জরিপে দেখা গেল স্বাস্থ্যসেবার মানের দিক দিয়ে বিশ্বের ১৯৫টি দেশের মধ্যে কাতারের অবস্থান ৪১। এরপরই রয়েছে কুয়েতের অবস্থান (৪৪)। আর বাংলাদেশের অবস্থান ১৩৩। এছাড়াও র‌্যাংকিংয়ে সৌদি আরবের অবস্থান ৫২তম। ব্রুনাই ৫৩ ও ওমান ৫৪তম অবস্থানে। আর সামরিক দিক দিয়ে সবচেয়ে শক্তিশালী মুসলিম দেশ তুরস্ক স্বাস্থ্যখাতেও পিছিয়ে নেই। র‌্যাংকিংয়ে তাদের অবস্থান ৬০তম। অপরদিকে মধ্যপ্রাচ্যের বাহরাইন ৬৫তম অবস্থানে রয়েছে। আর ইরানের অবস্থান ৬৬তম।  মুসলিম বিশ্বের আলোচিত লিবিয়া রয়েছে ৬৭তম অবস্থানে। জর্ডান ৭৪তম, তিউনিসিয়া ৭৭তম ও বিশ্বের ৭৮তম দেশ হিসেবে অবস্থান করছে কাজাখস্তান। ল্যানসেট ওই গবেষণায় আরও দেখা যায়, বিশ্বের ১৯৫টি দেশের মধ্যে সূচকের হিসেবে স্বাস্থ্যসেবার মানের দিক দিয়ে বিশ্বের শীর্ষস্থানে রয়েছে আইসল্যান্ড। আর সবার নিচে রয়েছে সেন্টার আফ্রিকান রিপাবলিকান। তালিকায় সর্বোচ্চ স্বাস্থ্যসেবা ও গুণগতমানে দ্বিতীয় হচ্ছে নরওয়ে, তৃতীয় নেদারল্যান্ড, চতুর্থ লুক্সেমবার্গ, পঞ্চম অস্ট্রেলিয়া, ষষ্ঠ অবস্থানে ফিনল্যান্ড, সপ্তম সুইজারল্যান্ড, অষ্টম সুইডেন, নবম ইতালি, দশম এনডোরা। পরে পর্যায়ক্রমে আয়ারল্যান্ড, জাপান, অস্ট্রিয়া, কানাডা, বেলজিয়াম, নিউজিল্যান্ড, ডেনমার্ক, জার্মানি, স্পেন, ফ্রান্স এবং ২০তম অবস্থানে রয়েছে সিঙ্গাপুর। চীনের অবস্থান ৪৮তম ও শ্রীলংকা রয়েছে ৭১তম অবস্থানে। বাংলাদেশ ১৩৩তম ও ভুটান ১৩৪তম। নেপালের ১৪৯তম, পাকিস্তান ১৫৪তম ও আফগানিস্তান হচ্ছে ১৯১তম। কিন্তু এদের চেয়ে ভালো অবস্থানে ভারত। সূচকে পর্যায়ক্রমে সবচেয়ে বাজে অবস্থানে রয়েছে আফ্রিকান প্রজাতন্ত্র ১৮.৬ পয়েন্ট, সোমালিয়া ১৯.০ পয়েন্ট, গিনি বিসু ২৩.৪ পয়েন্ট, চাদ ২৫.৪ পয়েন্ট ও আফগানিস্তান ২৫.৯ পয়েন্ট। উল্লেখ্য, গত বছরের ১৯ মে বিশ্বের ১৯৫টি দেশের The Health care Access and Quality Index র‌্যাংকিং প্রকাশ করে। যাতে বাংলাদেশের অবস্থান ছিল ১৩৯তম ও স্কোর ৫২। আর আমাদের চেয়ে অনেক পিছিয়ে ছিল প্রতিবেশী দেশ ভারত। তাদের অবস্থান ১৫৪তম ও স্কোর ৪৫। পাকিস্তানের অবস্থান ১৬০তম ও স্কোর ৪৩। দক্ষিণ এশিয়ায় সবচেয়ে এগিয়ে ছিল শ্রীলংকা। তাদের অবস্থান ৮৫তম ও স্কোর ৭৩। আর গত বছর র‌্যাংকিংয়ে সবার ওপরে রয়েছে সুইজারল্যান্ড। এরপরেই যথাক্রমে অবস্থান করছে সুইডেন ও নরওয়ে। ১৯৯০ সাল থেকে ২০১৫ পর্যন্ত সময়ে দেশগুলোর চিকিৎসাসেবার মানের ওপর ভিত্তি করে এ প্রতিবেদন তৈরি করা হয়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here