হযরত মুহাম্মদ (সা:) কে অমুসলিম বলায় জনগণের গণধোলাই খেলেন হাবিবুর রহমান

0
70

মহানবী হযরত মুহাম্মদ (সা:) সম্পর্কে কটুক্তির অভিযোগে কিশোরগঞ্জের কটিয়াদীতে একজনকে আটক করেছে কটিয়াদী মডেল থানা পুলিশ।

মহানবী হযরত মুহাম্মদ (সা:) কে অমুসলিম দাবি করেন তিনি। তিনি বলেন নবীজি মুসলমান না। তিনি দাবি করেন নবী যদি মুসলমান হত তাহলে নবী আমাদের ভাই হয়ে যায় আর নবীর স্ত্রী আমাদের ভাবি হয়ে যায়। তিনি বলেন আল্লাহ কোরআনে বলেন মুমলমান মুসলমানের ভাই ভাই, নবী মুসলিম হলে নবীও আমাদের ভাই হয়ে যায়, তাই তিনি নবীজিকে অমুসলিম দাবি করেন।

ফেসবুকে চরম মাপে ভাইড়াল হয়ে যায় তার ভিডিওটি, এতে করে সারা বাংলাদেশের মুসলিম ক্ষেপে যায় তার উপর, তার শাস্ত্রী দাবি করছে বাংলার মুসলমান রা। নবীজিকে অমুসলিম বলায় গ্রেফতার হয় তিনি।

এ ব্যাপারে কটিয়াদী মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) শফিকুল ইসলাম জানান, হাবিবুর রহমানকে স্থানীয় জনতা আটক করে পুলিশে সোপর্দ করে। এরপর তাকে কটিয়াদী থানা হেফাজতে নেয়া হয়। তাকে আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে।

মাওলানা হাবিবুর রহমান রেজভী (৫০) নামে ওই ব্যক্তি ওয়াজের বয়ানে মহানবী হযরত মুহাম্মদ (সা:) সম্পর্কে কটুক্তি করার অভিযোগ পেয়ে কিশোরগঞ্জের কটিয়াদী থানা পুলিশ তাকে আটক করে।

হাবিবুর রহমান রেজভীর বয়ানের ভিডিওটি ফেসবুকে ভাইরাল হলে স্থানীয় জনতা ক্ষুব্ধ হয়ে হাবিবুর রহমানকে আটক করে পুলিশকে খবর দেয়, পুলিশ তাকে কটিয়াদী থানায় নিয়ে আসে পুলিশ। রোববার কটিয়াদী পৌর-সদরের গেঞ্জিপট্টি মার্কেট থেকে তাকে আটক করা হয়।

হাবিবুর রহমান হাবিব সদরের কটিয়াদী পৌর সদরের বেইথর গোয়াতলা গ্রামের মৃত রবিউলল্লার ছেলে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here