হামলার অনুমতি দিয়ে প্রত্যাহার করলেন ট্রাম্প

0
144

মার্কিন ড্রোন ভূপাতিত করায় ইরানকে শায়েস্তা করতে সামরিক অভিযানের অনুমোদন দিয়েও তা প্রত্যাহার করেন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। তবে তিনি ইরানকে হুঁশিয়ারি দিয়ে বলেছেন ‘মার্কিন ড্রোন ধ্বংস করে ইরান খুব বড় ভুল করে ফেলেছে।’

বৃহস্পতিবার মার্কিন ড্রোন গুলি করে ভূপাতিত করায় ইরানে সামরিক হামলার অনুমতি দেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। তবে হামলা চালানো হবে এমন প্রস্তুতির শেষ মুহূর্তে সিদ্ধান্ত থেকে সরে আসেন তিনি।

ট্রাম্প শুক্রবার বলেন, ‘আমি একজন জেনারেলকে জিজ্ঞেস করি, হামলার করলে কতজন মারা যাবে, জেনারেলের উত্তর ছিল ১৫০ জন।

ট্রাম্প আরো বলেন, ‘একটি মানুষহীন ড্রোন ভূপাতিত করার জবাবে ১৫০ মানুষের মৃত্যু যুক্তিযুক্ত হত না।’

এছাড়া মার্কিন প্রেসিডেন্ট বলেন, ‘আমি অত ব্যস্ত হয়ে পড়ছি না, আমাদের সামরিক বাহিনী পুনঃসজ্জিত, নতুন এবং এগিয়ে চলার জন্য প্রস্তুত।’

যুক্তরাষ্ট্রের সংবাদ মাধ্যমের বরাত দিয়ে বিবিসির খবরে বলা হয়, ওই ঘটনার জবাব দিতে কয়েকটি ইরানি লক্ষ্যবস্তুতে পাল্টা হামলার পরিকল্পনা অনুমোদন করেছিলেন ট্রাম্প। সে অনুযায়ী প্রস্তুতিও শুরু হয়েছিল। কিন্তু নতুন আদেশে প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প তা থামিয়ে দেন।

একজন জ্যেষ্ঠ প্রশাসনিক কর্মকর্তার বরাত দিয়ে নিউইয়র্ক টাইমসের প্রতিবেদনে বলা হয়, ‘জঙ্গি বিমান আকাশে ছিল, যুদ্ধজাহাজও সম্পূর্ণ প্রস্তুত ছিল। ইরানি সেনাবাহিনী বা বেসামরিক নাগরিকদের হতাহত হওয়ার ঝুঁকি কমাতে গতকাল শুক্রবার প্রথম প্রহরে ওই হামলা চালানোর পরিকল্পনা করা হয়েছিল। কিন্তু হামলা না করার নির্দেশ আসায় কোনো ক্ষেপণাস্ত্র আর ছোড়া হয়নি।’

বিবিসি জানিয়েছে, হামলার ওই পরিকল্পনা বাতিল হয়ে গেছে, নাকি এখনো হামলার সম্ভাবনা রয়ে গেছে তা স্পষ্ট হয়নি। এ বিষয়ে হোয়াইট হাউস বা পেন্টাগনের কোনো প্রতিক্রিয়া জানা যায়নি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here