আজ আফগানদের মুখোমুখি টাইগাররা

0
148

দু’দলের পার্থক্যটা অনেক। বাংলাদেশ সরাসরি বিশ্বকাপ খেলতে এসেছে। আফগানিস্তান এসেছে বাছাইপর্ব খেলে। বাংলাদেশ দল সেমিফাইনালে যাওয়ার চিন্তা করছে। বড় বড় দলকে আত্মবিশ্বাসের সঙ্গে হারাচ্ছে। আফগানিস্তান দুই বিশ্বকাপ খেলে এখনও বিশ্বকাপে কোন জয় পায়নি।

তারপরও সামনে আফগানিস্তান পড়লে চাপ নিয়ে নেয় বাংলাদেশ। জিম্বাবুয়ে, আয়ারল্যান্ডকে এখন বাংলাদেশ যেমন বলে-কয়ে হারায়। ঠিক আফগানদের বিপক্ষে তেমনটা পারে না। এই চাপ নিয়ে নেওয়ার খেসারতও দিতে হয় টাইগারদের।

ভারতের বিপক্ষে দারুণ উজ্জীবিত আফগানিস্তানকে দেখার পর সেই ভয় কি আবারও মাথাচাড়া দিয়ে উঠছে? এমন প্রশ্ন উঠলো আফগানদের বিপক্ষে ম্যাচের আগের দিন আজ সংবাদ সম্মেলনে বাংলাদেশ দলের কোচ স্টিভ রোডসের কাছে। কোচের উত্তর, ‘আফগানিস্তানকে কোনো রকম ভয় পাচ্ছে না বাংলাদেশ। তবে প্রতিপক্ষ হিসেবে অবশ্যই সম্মান এবং সমীহের চোখে দেখে।’ গত এশিয়া কাপের প্রসঙ্গ টেনে তিনি বলেন, ‘এখন মনে হয় গত এশিয়া কাপের মতো অবস্থা। সেখানেও এই আফগানদের হারিয়ে আমরা সেমির পথে অগ্রসর হয়েছিলাম (যদিও সেবার প্রথম ম্যাচে ১৩৬ রানের বড় ব্যবধানে হেরে পরের ম্যাচে ৩ রানে আফগানদের হারিয়েছিল বাংলাদেশ)। সেটাও একটা অনুপ্রেরণা।’

অন্যদিকে সংবাদ সম্মেলনে আফগান অধিনায়ক বলেন, ‘আমরা এরই মধ্যে এই উইকেটে খেলেছি, কিন্তু ক্রিকেট খেলা নির্ভর করে বর্তমানের ওপর, আপনি কেমন খেলেন, কন্ডিশন কেমন; বিশেষ করে ইংলিশ কন্ডিশনে। গতকাল (শনিবার) ছিল রৌদ্রোজ্জ্বল দিন, আমাদের জন্য ভালো ছিল, দুই দলের জন্যই। আমরা হেরেছি, কিন্তু ভালো কিছুও করেছি। বাংলাদেশের বিপক্ষে আরও বেশি চেষ্টা থাকবে।’

গত কয়েক বছরে বাংলাদেশের উন্নতি চোখ এড়ায়নি আফগানিস্তানেরও। নতুন অধিনায়ক নাইব তো মাশরাফির নেতৃত্বে মুগ্ধ, ‘বাংলাদেশের ক্রিকেটের দিকে তাকান, তারা গত কয়েক বছরে সত্যিই ভালো করছে। বিশেষ করে যখন থেকে মাশরাফি অধিনায়ক। প্রত্যেক বিভাগে তারা উন্নতি করছে। এশিয়ার বাইরে কয়েকটি দেশ ভুগলেও গত চার বছরে তারা অনেক এগিয়েছে, বিশেষ করে ব্যাটিংয়ে। মাশরাফি সত্যিই দারুণ নেতৃত্ব দিচ্ছেন দলকে।’

তবে এই বাংলাদেশকেই ভোগাতে মরিয়া নাইব। তিন স্পিনার রশিদ খান, মোহাম্মদ নবী ও মুজিব উর রহমানকে মূল অস্ত্র বানাতে চান অধিনায়ক, ‘আমি সত্যিই বাংলাদেশকে দেখে মুগ্ধ। তারা টুর্নামেন্টে ভালো শুরু করেছে, এটা আমরা সহজভাবে নিচ্ছি না। যদি উইকেট আমাদের স্পিনারদের সাহায্য করে তাহলে প্রত্যেকের জন্য ম্যাচটা কঠিন করতে পারি, সেটা শুধু বাংলাদেশের বিপক্ষে নয়। আমাদের স্পিন আক্রমণে বিশ্বের অন্যতম সেরা। উইকেট অনুকূলে থাকলেই হলো। আজ নতুন একটা দিন।’

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here