সরকারি চাকরিতে ডোপ টেস্ট বাধ্যতামূলক হচ্ছে

0
131

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল জানিয়েছেন, সরকারি চাকরিতে ডোপ টেস্ট বাধ্যতামূলক হচ্ছে। তিনি বলেন, সরকারি কর্মকর্তারা যদি মাদকাসক্ত হয় তাহলে তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে। গতকাল মঙ্গলবার দুপুরে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে ‘মাদকদ্রব্যের অপব্যবহার ও অবৈধ পাচারবিরোধী আন্তর্জাতিক দিবস-২০১৯’ পালন উপলক্ষে এক সংবাদ ব্রিফিংয়ে তিনি এসব কথা বলেন।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ‘মাদকমুক্ত সমাজ প্রতিষ্ঠা আমাদের অন্যতম অঙ্গীকার। মাদকের উৎস, সরবরাহ ও সেবন সবকিছুই আমরা বেশ শক্তভাবে নিয়ন্ত্রণ করছি। প্রথম দিকে সরকারি চাকরিতে যোগ দিতে সব প্রার্থীকেই ডোপ টেস্টে অংশ নিতে হবে। ডোপ টেস্টের রিপোর্টে কারো বিরুদ্ধে মাদক গ্রহণের প্রমাণ পাওয়া গেলে তিনি যত যোগ্যতা সম্পন্নই হোন, তার আবেদন বাতিল হবে।’

এক প্রশ্নের জবাবে আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল বলেন, ‘এখন সরকারি চাকরিতে যোগদানের সময় ডোপ টেস্ট বাধ্যতামূলক করা হচ্ছে। প্রর্যায়ক্রমে বর্তমানে যারা চাকরি করছেন, তাদেরও এ টেস্ট দিতে হবে। বর্তমানে চাকরিরত কারো বিরুদ্ধে মাদক গ্রহণের প্রমাণ পাওয়া গেলে তাদের বিরুদ্ধেও বিভাগীয় ও আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’

সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, সরকারি চাকরিতে প্রবেশের সময় ডোপ টেস্ট বাধ্যতামূলক হচ্ছে। সবার জন্য এটি প্রযোজ্য হবে। এ ধরনের একটি অনুশাসনের ফাইলে প্রধানমন্ত্রীর অনুমোদন চেয়েছিলাম। তিনি অনুমোদন দিয়েছেন। এটা এখন বাস্তবায়ন হবে পর্যায়ক্রমে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here