অনুপ্রবেশকারীদের ছেঁটে ফেলবে আওয়ামী লীগ

0
7

দলের মধ্যে অনুপ্রবেশকারীদের ছেঁটে ফেলবে আওয়ামী লীগ। ভোল পাল্টে ও ‘ডিগবাজি’ দিয়ে অন্য দল থেকে ঢুকে পড়া এমন সদস্যদের বাদ দেওয়ার উদ্যোগ নেওয়া হচ্ছে দলটিতে। ফলে মন্ত্রী-এমপি-নেতাদের প্রশ্রয়ে দলের পদ-পদবি পাওয়া যুদ্ধাপরাধী পরিবারের সদস্যরাসহ বিতর্কিত এবং সুবিধাবাদীরাও বাদ পড়বেন।

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের সাম্প্রতিক দলীয় ফোরামের বৈঠক ও সংবাদ সম্মেলনে বলেছেন, যুদ্ধাপরাধী পরিবারের সদস্যরাসহ হাইব্রিড যারা দলের মধ্যে আগেই ঢুকে পড়েছেন, তাদের সদস্যপদ কোনো অবস্থায় নবায়ন করা হবে না। স্বাধীনতাবিরোধী যুদ্ধাপরাধী ও তাদের পরিবারের সদস্যরা আওয়ামী লীগের সদস্য হতে পারবেন না- এটিও পুরনো সিদ্ধান্ত।

চলতি বছরের অক্টোবরে আওয়ামী লীগের ২১তম জাতীয় সম্মেলন আয়োজনের প্রস্তুতি চলছে। এ প্রস্তুতির অংশ হিসেবে গত ১১ মে থেকে বিভিন্ন জেলায় সাংগঠনিক সফরে বের হয়েছে দলের কেন্দ্রীয় নেতাদের আটটি টিম। অভ্যন্তরীণ দ্বন্দ্ব-কোন্দল নিরসন, মেয়াদোত্তীর্ণ জেলা-উপজেলা সম্মেলন আয়োজন ও পূর্ণাঙ্গ কমিটি গঠন, সদস্য সংগ্রহ ও নবায়ন অভিযান জোরদার করা এবং ‘মুজিব বর্ষে’ দেশজুড়ে দলীয় কর্মসূচি আয়োজনসহ কয়েকটি লক্ষ্যকে সামনে নিয়ে এ সাংগঠনিক সফর চলছে। ইতিমধ্যে খুলনা মহানগর ও জেলা, যশোর, নড়াইল, বাগেরহাট, ঝিনাইদহ, সাতক্ষীরা, চট্টগ্রাম উত্তর-দক্ষিণ জেলা, কক্সবাজার, রাঙামাটি, বান্দরবান, বরিশাল এবং ফরিদপুরসহ বেশ কয়েকটি জেলায় বর্ধিত ও কর্মিসভায় যোগ দিয়েছেন নেতারা। জেলা পর্যায়ের নেতাদের সঙ্গে বৈঠকও করেছেন কেন্দ্রীয় নেতারা।

এই সফরে পাওয়া তথ্যের ভিত্তিতে দলের দায়িত্বপ্রাপ্ত বিভাগীয় যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক এবং সাংগঠনিক সম্পাদকরা গুরুত্বের সঙ্গে অনুপ্রবেশকারীদের তালিকা তৈরি করছেন।

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের দলীয় ফোরামের সাম্প্রতিক এক সভায় বলেন, জনগণের কাছে যারা অগ্রহণযোগ্য ও ভালো মানুষ নয়- তাদের আওয়ামী লীগে কোনো প্রয়োজন নেই। তাই দলকে এসব খারাপ লোক থেকে মুক্ত রাখার উদ্যোগ নেবেন তারা।

দলের আরেক যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আবদুর রহমান বলেন, সাংগঠনিক সফরকালে দলের ভেতরে অনুপ্রবেশকারী তথা অশুভ শক্তি রয়েছে কি-না- সে বিষয়েও খোঁজ-খবর নেওয়া হচ্ছে। এদের দল থেকে বিতাড়নের পদক্ষেপ নেওয়া হচ্ছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here