শহীদ মিনারে খোকাকে শ্রদ্ধা জানাতে জনস্রোত

0
94

অবিভক্ত ঢাকার সাবেক মেয়র, বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান ও মুক্তিযোদ্ধা সাদেক হোসেন খোকার মরদেহ কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে নেয়া হয়েছে। জাতীয় সংসদ ভবনের দক্ষিণ প্লাজা থেকে বৃহস্পতিবার দুপুর ১২টায় তার মরদেহ সেখানে নেয়া হয়। এ সময় সেখানে দলের কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দসহ বিভিন্ন অঙ্গ সংগঠনের নেতাকর্মীরা পুষ্প অর্পণের মাধ্যমে তার মরদেহের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন করছেন।

এর আগে, আজ বৃহস্পতিবার বেলা এগারটায় জাতীয় সংসদের দক্ষিণ প্লাজায় খোকার দ্বিতীয় নামাজে জানাজা অনুষ্ঠিত হয়েছে। সেখান থেকে বেলা ১২টা মৃতদেহ নিয়ে আসা হয় শহীদ মিনারে। দুপুর দেড়টা নাগাদ বিএনপির নয়াপল্টন কেন্দ্রীয় অফিসের সামনে খোকার মৃতদেহ নিয়ে যাওয়া হবে। দুপুর ৩টায় নেওয়া হবে ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশন ভবনে। সব শেষে পুরান ঢাকার গোপীবাগে নিজ বাসা হয়ে ধূপখোলা মাঠে জানাজা শেষে জুরাইন কবরস্থানে বাবা-মায়ের কবরের পাশে খোকাকে দাফন করা হবে।

খোকার মরদেহ পৌঁছার পর লাশবাহী গাড়ির কাছে যেতে চরম বেগ পেতে হয়েছে বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, স্থায়ী কমিটির সদস্য খন্দকার মোশাররফ হোসেন, মির্জা আব্বাস, গয়েশ্বর চন্দ্র রায় ও বিএনপি নেতা মিজানুর রহমান মিনুকে।

এর আগে সাদেক হোসেন খোকার কফিনবাহী এমিরেটস এয়ারলাইন্সের ইকে ২০২ নম্বর ফ্লাইটটি নিউইয়র্ক সময় মঙ্গলবার রাত ১১টা ২০ মিনিটে (বাংলাদেশ সময় বুধবার সকাল ১০টা ২০ মিনিটে) দুবাইর পথে রওনা হয়। সেখান থেকে একই এয়ারলাইন্সের ইকে ৫৮২ নম্বর ফ্লাইটে খোকার লাশ বৃহস্পতিবার বাংলাদেশ সময় সকাল ৮টা ২৮ মিনিটে ঢাকায় পৌঁছায়।

উল্লেখ্য, ২০০২ সালের ২৫ এপ্রিল অবিভক্ত ঢাকা সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে মেয়র নির্বাচিত হন সাদেক হোসেন খোকা। ২৯ নভেম্বর ২০১১ সাল পর্যন্ত টানা ১০ বছর বিএনপি ও আওয়ামী লীগের শাসনামলে তিনি ঢাকা মহানগরের মেয়র ছিলেন।

ক্যান্সারে আক্রান্ত খোকা গত সোমবার নিউইয়র্কের ম্যানহাটনের মেমোরিয়াল স্লোয়ান ক্যাটারিং ক্যান্সার সেন্টারে মারা যান। রাতেই কুইন্সের জ্যামাইকা মুসলিম সেন্টারে তার জানাজা হয়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here