ভারতে একদিনে শনাক্ত প্রায় ৩ লাখ, মৃত্যু ২০২৩

0
46

করোনাভাইরাসের দ্বিতীয় ঢেউয়ে বিপর্যস্ত গোটা বিশ্ব। বিশ্বব্যাপী প্রতিদিনই বেড়ে চলেছে করোনাভাইরাসে মৃত্যু ও শনাক্তের সংখ্যা। বর্তমানে এই ভাইরাসে বিভিন্ন দেশের মধ্যে টালমাটাল ভারত। গেল কয়েকদিন ধরেই দেশটিতে প্রতিদিন সংক্রমণের রেকর্ড একের পর এক ভেঙ্গে যাচ্ছে।

গত বৃহস্পতিবার (১৫ এপ্রিল) দেশটিতে প্রথমবারের মতো দৈনিক সংক্রমণ ২ লাখ পেরিয়েছিল। এরপর থেকে রোজই সংক্রমণ হচ্ছে ২ লাগের বেশি মানুষ। গত ২৪ ঘণ্টায় দেশটিতে নতুন করে আক্রান্ত হয়েছেন ২ লাখ ৯৫ হাজার ৪১ জন। একই সময়ে মারা গেছে ২ হাজার ২৩ জন।

যা এখন পর্যন্ত দেশটিতে ২৪ ঘণ্টায় সর্বোচ্চ মৃত্যুর রেকর্ড। আক্রান্ত ও মৃত্যুর এই সংখ্যা থেকে করোনাভাইরাস মহামারির দ্বিতীয় ঢেউয়ে দেশটির বিপর্যস্ত অবস্থার চিত্র সম্পর্কে ধারণা করা যায়।

বুধবার (২১ এপ্রিল) ভারতীয় সংবাদমাধ্যম এনডিটিভির প্রতিবেদন থেকে এই তথ্য জানা গেছে।

এতে বলা হয়েছে, দেশটিতে টানা সপ্তম দিনের মতো করোনা সংক্রমিত রোগী শনাক্ত ২ লাখের ওপরে রয়েছে। দেশটিতে এখন পর্যন্ত আক্রান্ত হয়েছেন ১ কোটি ৫৬ লাখের বেশি মানুষ, যা সারাবিশ্বে যুক্তরাষ্ট্রের পর দ্বিতীয় সর্বোচ্চ।

ভারতে করোনা আক্রান্ত রাজ্যগুলোর মধ্যে সবচেয়ে ভয়াবহ অবস্থা মহারাষ্ট্রের। গত একদিনে রাজ্যটিতে নতুন ৬২ হাজার ৯৭ জনের শরীরে সংক্রমণ শনাক্ত হয়েছে। আর মারা গেছেন ৫১৯ জন।

এতে রাজ্যটিতে মোট আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৩৯ লাখ ছয় হাজারে এবং মোট মারা গেছেন ৬১ হাজার ৩৪৩ জন।

মোট আক্রান্ত বিবেচনায় মহারাষ্ট্রের পরেই রয়েছে যথাক্রমে কেরালা, কর্ণাটক, তামিলনাড়ু এবং অন্ধ্র প্রদেশ।

এদিকে সংক্রমণের এই ঊর্ধ্বগতি ঠেকাতে আগামী ১ মে থেকে ভারতের ১৮ বছর বয়সী থেকে তদূর্ধ্ব সবাই টিকা নিতে পারবেন বলে ঘোষণা দিয়েছে কেন্দ্রীয় সরকার।

ভ্যাকসিন প্রস্তুতকারী প্রতিষ্ঠানগুলোকে মোট উৎপাদনের ৫০ শতাংশ পূর্বনির্ধারিত মূল্যে কেন্দ্রীয় সরকারকে এবং বাকি অংশ রাজ্য সরকার ও বাজারে বিক্রির জন্য দেয়ার নির্দেশ দেয়া হয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here