ডেঙ্গু কিন্তু মারাত্মক আকার নিয়েছে!

0
36

রাশেদ আহমেদ: প্রথমে দুদিন জ্বর, তারপর প্লাটিলেট কাউন্টিং ও প্রেসার মারাত্মকভাবে নেমে যাচ্ছে, Internal & External hemorrhage হয়ে চারদিনেই শেষ হয়ে যাচ্ছে একটি পরিবারের একটি স্বপ্ন।

গত দুই মাস থেকে ঢাকা ও তার আশেপাশে এবারের ডেঙ্গু ভিন্নরুপে ও মারাত্মক ভয়ানক রুপ নিয়ে আবির্ভাব ঘটেছে। পরিচিতদের মধ্যেই বেশ কয়টি শিশু মারা গেছে গত কয়দিনে৷ বিশেষ করে মেয়ে শিশুর মৃত্যুর সংখ্যাই বেশী। সরকারি ও বেসরকারী মেডিকেল গুলোতে প্রায় প্রতিদিন তিন চারটি শিশু ডেঙ্গুর কারনে মারা যাচ্ছে।

আশ্চর্য হয়ে লক্ষ্য করা যাচ্ছে এই নিয়ে মিডিয়া ও সরকার একদম নীরবতা পালন করছে। আমি নিশ্চিত মানণীয় প্রধানমন্ত্রীর কানে এখনো পৌঁছাতে পারেনি সংবাদটি, তাই সরকারি ভাবে কোন কিছুই চোখে পড়ছে না। এখন দেশে একটি ট্রেডিশন শুরু হয়েছে সরকারি মহলে, সব দায় প্রধানমন্ত্রীর।

তার কাছ থেকে নির্দেশ না আসা পর্যন্ত সবাই মুখে আঙুল দিয়ে শুধু হরিলুটের কাজ করে যাবে। যতক্ষন প্রধানমন্ত্রী স্বয়ং সেই বিষয়ে নির্দেশনা না দিবে ততক্ষন শুধুই লুটপাট চলবে, কাজের কাজ কিছুই করবে না কেউ নিজ দায়িত্বে। স্বাস্থ্যমন্ত্রীর কাজ কি? আসলে দেশের এত অর্থ খরচ করে এত সব মন্ত্রীর কাজ কি? সবই যদি নেত্রীকে করতে হয়। আমি অন্তত একটি মন্ত্রীকেও দেখী না, তারা কাজ করছে নীজ দায়িত্বে। তারা আছে শুধুই নিজ নিজ মন্ত্রণালয়ের লুটের ভাগাভাগি নিয়ে।

আর বিরোধীদল বলুন আর বামদের কথা বলুন, তাদের শুধুই ক্ষমতায় কিভাবে যাবে, ভোট কিভাবে হবে, ভোটের মাঠ সোজা না বাঁকা হবে এসব নিয়ে সারাবছর আছে, জনসাধারনের মৌলিক চাহিদা গুলো নিয়ে তারা কোন দিন আন্দোলন করে নাই। শুধুই গদিতে বসার বাসনা এদের। সব ধান্দাবাজির বিরোধীদল এই দেশে৷

এখনি ডেঙ্গু বিষয়ে সরাকারের ব্যবস্থা নেয়া উচিত। এবারের ডেঙ্গু কিন্তু মারাত্মক আকার নিয়েছে। সিটি কর্পোরেশন তো হইছে আরেক অভাগা কর্পোরেশন। একজন চলে গেছেন, আরেক জন আছে বাপের কোটায় মেয়র হয়ে ঝাড়ুতে গ্রিনিজ রেকড করা নিয়ে। এই ‘ওকা’ শুরু করছে মিডিয়া স্টান্টবাজী আর বাকী গুলোও এখন মিডিয়াতে স্টান্টবাজী করে শুধুই।

বিশেষ করে এই আব্বা কোটার মেয়র, শুধুই মিডিয়াতে স্টেনবাজী। কোন কাজ নেই।

আমাদের কপালে ভালো কিছু ততক্ষন জুটবে না যতক্ষন না নেত্রীর কানে বিষয়টি পৌঁছাবে। শিশুদের কথা চিন্তা করেও মিডিয়ার এসব বিষয়ে খোলামেলা রিপোর্ট করা উচিত।

পরিশেষে বলবো, ডেঙ্গুর প্রকোপ থেকে বাঁচার জন্য নিজের বাচ্চাদের নিজেরাই খেয়াল নিন। এই দুই সিটি কর্পোরেশন মশা নিধনের টাকা মেরে লুটপাটে ব্যস্ত। নিজেরাই নিজেদের আশেপাশে পরিস্কার রাখুন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here