নারীকে বিবস্ত্র করে পিটিয়ে হাত ভেঙ্গে দেয়ার অভিযোগ আ’লীগ কর্মীর বিরুদ্ধে

0
167
ইসাহাক আলী, নাটোর : নাটোরের গুরুদাসপুর উপজেলার নাজিরপুর এলাকায় কু-প্রস্তাবে রাজি না হওয়ায় সাথীয়া বেগম সাথী ( ৩৩) নামে এক নারীকে পাঁকা সড়কের ওপর বিবস্ত্র করে পিটিয়ে হাত ভেঙ্গে দিয়েছে স্থানীয় আওয়ামী লীগ কর্মী জাহাঙ্গীর আলম (২৭)। রবিবার দুপুরে নাটোর আধুনিক সদর হাসপাতালে ভর্তি সাথী বেগম সাংবাদিকদের জানান, নাজিরপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি ও সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান আইয়ুব আলীর ভাই জাহাঙ্গীরের কু-প্রস্তাবে রাজি না হওয়ায় সে নিজে তাকে প্রকাশ্যে পিটিয়ে আহত করেছে। সমাজে প্রভাবশালী হওয়ায় ঘটনার সময় অনেকেই প্রত্যক্ষ করলেও কেউ বাধা দেওয়ার সাহস করেনি কেউ। আহত সাথীয়া বেগম সাথী দুধগাড়ি নাজিরপুর এলাকার সাইজুর আলীর মেয়ে ও নাটোর সদর উপজেলার দত্তপাড়া গ্রামের আফাজ প্রামানিকের স্ত্রী।
নাটোর সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন সাথী বেগম বলেন, জাহাঙ্গীর তাকে কু-প্রস্তাব দিয়ে প্রায় উত্তক্ত করতো। তিনি সেই নোংরা প্রস্তাব প্রত্যাখান করায় জাহাঙ্গীর তাকে দেখে নেওয়ার হুমকি দেয়। গত শুক্রবার তিনি গ্রামের পথ দিয়ে হেঁটে বাড়ির দিকে যাচ্ছিলেন। এসময় জাহাঙ্গীর তাকে পিছন থেকে জাপটে ধরে তার শাড়ি টেনে খুলে ফেলে। বাধা দিলে সে লাঠি দিয়ে তাকে এলোপাথারি মারপিট করে। মারপিটে তার বাম হাত ভেঙ্গে যায় এবং গোটা শরীরে আঘাত লাগে। ঘটনার সময় তিনি জ্ঞান হারিয়ে রাস্তায় পড়ে গেলে স্থানীয়রা তাকে তাকে হাসপাতালে নিয়ে যান।
সাথী বেগমের স্বামী আফাজ উদ্দিন বলেন, জাহাঙ্গীররা খুবই প্রভাবশালী হওয়ায় তাদের অপকর্মের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ করার সাহস কেউ করে না। তিনি রোববার আদালতে মামলা করার প্রস্তুতি নিয়েছেন বলে জানান।
স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান ও জেলা তাঁতী লীগ সহ-সভাপতি শওকত রানা লাবু জানান, তিনি লোকমুখে ঘটনা শুনেছেন। জাহাঙ্গীরের এমন অপকর্ম একাধিক। প্রভাবশালী হওয়ায় তার বিরুদ্ধে কেউ স্বাক্ষী দেয় না। প্রকাশ্যে বিবস্ত্র করে মারপিটের এই ঘটনা ঘটলেও কেউ প্রতিবাদ করার সাহস করেনি।
অভিযুক্ত জাহাঙ্গীরের ভাই নাজিরপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ সভাপতি ও সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান আইযুব আলী মারপিট করার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, পারিবারিক বিষয় নিয়ে সাথীকে মারপিট করে জাহাঙ্গীর। তবে বিবস্ত্র করার অভিযোগ সঠিক নয়, উদ্যেশ্য প্রণোদিত ভাবে এই অপবাদ দেয়া হচ্ছে। প্রতিপক্ষরা তাকে রাজনৈতিকভাবে সম্মান ক্ষুন্ন করতেই এমন প্রচারনা চালাচ্ছে। সাথী আমাদের পরিাবরেরই একজন। সে আমার জেঠাতো বোন। তার আহত হওয়ার খবর শুনে শনিবার নাটোর সদর হাসপাতালে গিয়ে জাহাঙ্গীরের দৃষ্টান্তমুলক শাস্তির নিশ্চয়তা দেওয়ার আশ্বাস সহ চিকিৎসার ব্যয় বহনের প্রতিশ্রুতি দিয়েছি। তারা তার ভাইয়ের বিরুদ্ধে আইনের আশ্রই নিলে তিনি তাদের পক্ষেই থাকবেন বলে তাদের আশ্বস্থ করেছি বলে জানান।
গুরুদাসপুর থানার অফিসার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) দিলীপ কুমার দাস জানান, এবিষয়ে পুলিশ কিছুই জানে না। কেউ থানায় অভিযোগ করেনি। অভিযোগ পেলে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here