বাংলাদেশ কে ২৫৬ টার্গেট দিয়েছে আফগানিস্তান

0
910

আবুধাবিতে টস জিতে আগে ব্যাট করতে নেমে শুরুটা ভালো করতে পারেনি আফগানিস্তান। অভিষেক ম্যাচের প্রথম ওভারেই উইকেট তুলে নেন আবু হায়দার রনি। ৮ রানে মোহাম্মদ মিঠুনের হাতে ক্যাচ দিয়ে ফেরেন ওপেনার ইনসানুল্লাহ জানাত। এক ওভার বিরতি দিয়ে রহমত শাহকে (১০) তুলে নেন রনি। ভয়ঙ্কর হয়ে ওটা হার্ডহিটার মোহাম্মদ শাহজাদকের (৩৭) দিয়ে শুরু করেন সাকিব আল হাসান।

লোয়ার অর্ডারের নৈপুণ্যে লড়াইয়ের পুঁজি পেলো আফগানিস্তান। শেষ দিকে রশিদ খান এবং গুলবুদ্দিনের বাটে ভর করে ২৫৫ রান তুলে আফগানিস্তান।
১৬০ রানে ৭ উইকেটা হারিয়ে ধুকতে থাকা আফগানিস্তান শিবিরে স্বস্তি ফেরান গুলবুদিন নবী এবং রশিদ খান। মাত্র ৩২ বলে ৫৭ রান করে অপরাজিত থাকেন রশিদ খান। ৩৮ বলে গুলবুদ্দিনের ব্যাট থেকে আসে অপরাজিত ৪২ রান।

এরপর একে একে অধিনায়ক আজগর আফগান (৮), সামিউল্লাহ সেনওয়ারী (১৮), এবং মোহাম্মদ নবীকে (১০) তুলে নেন তিনি। মাঝে অর্ধশতক (৫৮) হাঁকানো হাসমতুল্লাহ শহিদীকে উইকেটের পেছনে লিটন দাসের তালুবন্দী করান রুবেল হোসেন।

বাংলাদেশের হয়ে ৪ উইকেট তুলে নেন সাকিব। রনির ২ উইকেটের সঙ্গে ১টি উইকেট তুলে নেন রুবেল।

সংক্ষিপ্ত স্কোর: আফগানিস্তান ২৫৫/৭ শাহজাদ ৩৭, হাসমতুল্লাহ ৫৮, গুলবুদিন ৪২*, রশিদ ৫৭*।

বাংলাদেশ দলে তিন পরিবর্তন, দুই অভিষেক

এশিয়া কাপের গ্রুপ পর্বের শেষ ম্যাচে টস জিতে বাংলাদেশকে ফিল্ডিংয়ে পাঠিয়েছে আফগানিস্তান। বাংলাদেশ দলে আসছে তিনটি পরিবর্তন। ইনজুরির কারণে দল থেকে ছিটকে পড়া তামিমের পরিবর্তে দলে অভিষেক হচ্ছে নাজমুল হাসান শান্তর।

এছাড়া আগে থেকে ইনজুরিতে ভোগা মুশফিও এ ম্যাচে মাঠে নামছেন না। এর ফলে তিন বছর পর আবারও ওয়ানডে দলে ফিরেছেন মুমিনুল হক।

অন্যদিকে ওয়ানডে অভিষেক হয়েছে হচ্ছে তরুণ পেসার আবু হায়দার রনির। সুপার ফোরে ভারতের বিপক্ষে ম্যাচের কথা মাথায় রেখে বিশ্রাম দেয়া হয়েছে পেসার মোস্তাফিজুর রহমানকে।

এশিয়া কাপে রীতিমতো যুদ্ধ করতে হচ্ছে বাংলাদেশকে। দলের একাধিক সিনিয়র ক্রিকেটার ইনজুরি নিয়েই খেলতে গেছেন আমিরাতে। মড়ার ওপর খাড়া ঘা হয়ে আসলো তামিম ইকবালের ইনজুরি। ভাঙা হাত নিয়ে এখন টিভির সামনে বসেই খেলা দেখতে হবে দেশসেরা ওপেনারের। মুশফিক-সাকিবরা শুধু মাঠের লড়াই নয়, প্রতিনিয়ত নিজেদের শরীরের সঙ্গে লড়ে যাচ্ছেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here