চালু হলো চসিকের পাইলট প্রকল্প

0
203

দেশইনফো প্রতিনিধি: জীববৈচিত্র্য জরিপ ও সংরক্ষণে একটি পরীক্ষামূলক (পাইলট) প্রকল্প শুরু করছে চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশন। আজ শুক্রবার সকাল ৯টায় নগরের শুলকবহর ওয়ার্ডে প্রকল্পটির আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করা হয়। প্রকল্পটি পরিচালনা করবে বায়োডাইভার্সিটি রিসার্চ গ্রুপ অব বাংলাদেশ (বিএফজিবি)।

প্রাথমিক পর্যায়ে শুলকবহর ওয়ার্ডকে সমীক্ষার জন্য নির্ধারণ করেছে, যা পর্যায়ক্রমে নগরের সব ওয়ার্ডে করা হবে। পাইলট প্রকল্পের আওতায় শুলকবহর ওয়ার্ড এলাকায় কি পরিমাণ গাছ-পালা, পশু-পাখিসহ বিভিন্ন প্রাণির প্রয়োজন তার সঠিক তথ্য উপাত্ত সংগ্রহ, জনসংখ্যার অনুপাতে গাছ-পালা, পশু-পাখিসহ বিভিন্ন ধরণের প্রাণির ভারসাম্য কতটুকু সে বিষয়ে তথ্য সংরক্ষণ করা হবে। পাশাপাশি কোন ধরণের প্রাণি প্রজাতির অপ্রতুলতার কারণে পরিবেশে কোন সমস্যার সৃষ্টি হচ্ছে এবং সমাধানের উপায় উদ্ভাবনে পরিকল্পনাও প্রণয়ন করা হবে।

প্রকল্পের আওতায় ওয়ার্ড এলাকায় জরিপের স্থান নির্বাচন, উদ্ভিদকূল, পতঙ্গ, স্বাদু পানির শামুক-ঝিনুক, মাছ, ব্যাঙ, সরীসৃপ, পক্ষীকূল, স্তণ্যপায়ী ও গৃহপালিত প্রাণি এবং অন্যান্য প্রাণির উপর জরিপ কাজ পরিচালনা করা হবে।

ওয়ার্ড এলাকায় কি পরিমাণ মানুষ এবং অন্যান্য প্রাণি আছে, যারা অক্সিজেন গ্রহণ করে-কার্বন ডাই অক্সাইড ত্যাগ করে। কি পরিমাণ গাছ আছে যা কার্বন ডাই অক্সাইড শোষণ করে এবং প্রাণিদের জন্য অক্সিজেন সরবরাহ করে, এই গাছ কিভাবে বন্য প্রাণিকে আশ্রয় ও খাদ্য প্রদান করে, মানুষের ব্যবহৃত সরঞ্জাম-আশ্রয়ের উপকরণ প্রদান করে এ বিষয়ে জন-সচেতনতা বৃদ্ধিতে কাজ করা হবে।

এই প্রকল্পে সহযোগী বিজ্ঞানী হিসেবে কাজ করবেন চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক ড. আমিনুদ্দিন মৃধা, অধ্যাপক ড. মোস্তফা কামাল পাশা, অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ কামাল হোসাইন, অধ্যাপক ড. মো. ইসমাইল মিঞা, অধ্যাপক ড. এম মারুফ হোসেন, অধ্যাপক ড. এ এম জুনায়েদ সিদ্দিকী, অধ্যাপক নোমান আহমেদ সিদ্দিকী, ড. শেখ আবদুল মান্নান, ড. মাহমুদা বেগম, সন্তোষ মজুমদার ও চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষক শিক্ষার্থী।

জীববৈচিত্র্য সমীক্ষা জরিপের মাধ্যমে সংরক্ষণ কাজের ফলে এলাকার প্রাণি, উদ্ভিদের সঠিক একটি পরিসংখ্যান সংগ্রহসহ জনসচেতনতাও বৃদ্ধি হবে। তাছাড়া এই জরিপ কাজ নগরায়নে পরিকল্পনা প্রণয়নের ক্ষেত্রেও সহায়ক শক্তি হিসেবে কাজ করবে। জরিপ কাজ পরিচালনা শেষে বিআরজিবি চসিকের কাছে রিপোর্ট হস্তান্তর করবে। রিপোর্ট অনুসন্ধান করে পরবর্তীতে নগরীর ৪১ ওয়ার্ডে এই জীববৈচিত্র্য জরিপ ও সংরক্ষণ কাজ পরিচালনার ব্যাপারে উদ্যোগ গ্রহণ করা হবে। তিনি আগামী বাজেটে এ কার্যক্রম পরিচালনার জন্য বরাদ্দ রাখার ঘোষণা দেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here