জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট থেকে নির্বাচিত ৮ জন সদস্য শপথ নেবেন না : ড. কামাল

0
98

প্রবীণ আইনজীবী ও রাজনীতিক ড. কামাল হোসেন। ফাইল ছবিগণফোরামের জাতীয় কাউন্সিল উপলক্ষে আগামীকাল বুধবার দলীয় কার্যালয়ে কেন্দ্রীয় কমিটির প্রস্তুতি সভায় অংশ নেবেন দলটির সভাপতি ড. কামাল হোসেন। সভা শেষে তিনি বিকেলে সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলবেন।

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে গণফোরামের দুজন সংসদ সদস্য নির্বাচিত হয়েছেন। ড. কামাল হোসেনের নেতৃত্বাধীন জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট থেকে নির্বাচিত ৮ জন সদস্য শপথ নেবেন না বলে সিদ্ধান্ত হয়েছে। কিন্তু এর মধ্যেই গণফোরামের দুই সদস্য বলছেন তাঁরা শপথ নিতে চান। তাহলে গণফোরাম সংসদে যাচ্ছে কি না, এমন আলোচনা বিভিন্ন মহলেই আছে।

আগামীকাল বুধবার ড. কামাল এ ব্যাপারে কথা বলতে পারেন বলে দলটির পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে।

গণফোরামের কেন্দ্রীয় কমিটির তথ্য ও গণমাধ্যম সম্পাদক রফিকুল ইসলাম পথিক প্রথম আলোকে বলেন, ‘গণফোরামের জাতীয় কাউন্সিল উপলক্ষে একটা প্রস্তুতি সভা হবে বিকেল চারটা থেকে পাঁচটা পর্যন্ত। আরামবাগে গণফোরামের অফিসে এ সভা হবে। সভা শেষে কামাল হোসেন সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলবেন।’ তিনি জানান, এ বছরের মার্চের শেষদিকে দলের কাউন্সিল হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। এটি দলের পঞ্চম কাউন্সিল।

গণফোরামের সদস্য লতিফুল বারী হামিম বলেন, প্রস্তুতি সভায় গণফোরামের কেন্দ্রীয় কমিটি, প্রস্তুতি কমিটি ও যাঁরা নির্বাচনে মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছিলেন তাঁরাও উপস্থিত থাকবেন।

সিঙ্গাপুরে স্বাস্থ্য পরীক্ষা শেষে আজ মঙ্গলবার দুপুর সাড়ে ১২টায় ড. কামাল হোসেন দেশে ফেরেন। স্ত্রী হামিদা হোসেনকে নিয়ে তিনি গত ১৯ জানুয়ারি রাতে সিঙ্গাপুর গিয়েছিলেন।

এদিকে নতুন ফ্লাইওভার হচ্ছে মহাখালীতে!

সময়ের কণ্ঠস্বর ডেস্ক- রাজধানী ঢাকার প্রবেশমুখের যানজট নিরসনে এয়ারপোর্ট থেকে মহাখালী পর্যন্ত ১০ কিলোমিটার সড়কে পৃথক বাস র‌্যাপিড ট্রানজিট (বিআরটি) লেন নির্মাণের উদ্যোগ নিয়েছে সড়ক ও জনপথ অধিদফতর (সওজ)।

পৃথক লেন নির্মাণের জন্য বনানী সেতু ভবন থেকে মহাখালী বাস টার্মিনাল পর্যন্ত আরও একটি ফ্লাইওভার নির্মাণ করবে সরকার। সংশ্লিষ্টরা বলছেন, বর্তমানে যে ফ্লাইওভার আছে সেটা থাকবে। বিদ্যমান ফ্লাইওভারের পূর্বপাশ দিয়ে নতুন এ ফ্লাইওভার নির্মাণ করা হবে।

‘ঢাকা পাবলিক ট্রান্সপোর্ট ইমপ্রুভমেন্ট’ প্রকল্পের আওতায় এ উদ্যোগ নেওয়া হচ্ছে। এরই মধ্যে নকশা চূড়ান্ত ও মূল প্রকল্পের ব্যয় নির্ধারণের জন্য বিশ্বব্যাংকের সহায়তায় সম্ভাব্যতা যাচাই কাজও শুরু হয়ে গেছে।

২০১৯ সালের ডিসেম্বর মাসে ফিজিবিলিটি স্টাডির কাজ শেষ হবে। এতে মোট ব্যয় নির্ধারণ করা হয়েছে ৩৫ কোটি ৫৭ লাখ টাকা। এরপরই নেওয়া হবে মেগা প্রকল্প।

সওজ সূত্র বলছে, নতুন মহাখালী ফ্লাইওভার ছাড়াও এই রুটে সাতটি বিআরটি স্টেশন নির্মাণ করা হবে। বনানী সেতু ভবন থেকে মহাখালী বাস টার্মিনাল পর্যন্ত জমি অধিগ্রহণ সহজ হবে না; বিধায় নতুন ফ্লাইওভার নির্মাণ করা হবে। এই ফ্লাইওভারের ওপর দিয়েই নির্মিত হবে আর্টিকুলেটেড (দুই বগির জোড়া লাগানো) বাস লেন। মূলত এয়ারপোর্ট রুটকে যানজটমুক্ত করতেই এই বড় উদ্যোগ নেওয়া হচ্ছে।

নতুন এই প্রকল্পটির পরিচালক সানাউল হক বলেন, ‘মহাখালী ফ্লাইওভারকে কোনো ডিস্টার্ব না করেই নতুন ফ্লাইওভার নির্মাণ করবো। নতুন ফ্লাইওভার বনানী সেতু ভবন থেকে শুরু হয়ে নামবে মহাখালী বাস টার্মিনালে। মূলত আর্টিকুলেটেড বাস চলাচলের লেনের জন্যই এমন উদ্যোগ নেওয়া হচ্ছে।’

‘ইসরাইলকে না বলায় আয়োজক থেকে মালোয়েশিয়া বাদ’

বিশ্ব প্যারা সুইমিং চ্যাম্পিয়নশিপে ইসরাইলি সাঁতারুদের অংশগ্রহণে নিষেধ করায় মালয়েশিয়া আয়োজক হতে পারবে না। আন্তর্জাতিক প্যারালিম্পিক কমিটি মালোশিয়াকে আয়োজক কমিটি থেকে বাদ দেয়। ২০১৯ সালে এটি মালোশিয়ায় হওয়ার কথা ছিল।

তবে ২০২০ সালের টোকিও প্যারালম্পিকের কোয়ালিফায়ার চ্যাম্পিয়নশিপ ২৯ জুলাই থেকে ৪ আগস্টের মধ্যে কুচিংয়ে অনুষ্ঠিত হবে।

রোববার আইপিসি জানায়, তবে এটি যথাসময়ে অনুষ্ঠিত হবে।

জুলাইয়ের জন্য নির্ধারিত এ প্যারা সুইমিং চ্যাম্পিয়নশিপের নতুন আয়োজক কারা হতে যাচ্ছে, সে বিষয়ে অবশ্য এখনো সিদ্ধান্ত জানায়নি কমিটি। এছাড়া এ ব্যাপারে মালয়েশিয়ারও কোনো মন্তব্য মেলেনি।

বিষয়টিকে ‘সংশ্লিষ্টদের প্রয়োজনীয় সহায়তা দিতে ব্যর্থতা’ হিসেবে চিহ্নিত করে প্যারালিম্পিক কমিটির পক্ষ থেকে বলা হয়, ‘সক্ষম সব ক্রীড়াবিদ ও জাতি যেন প্রত্যেক বৈশ্বিক প্রতিযোগিতায় কোনো বৈষম্য ছাড়াই নির্বিঘ্নে ও নিরাপদে অংশ নিতে পারেন, তা নিশ্চিত করা উচিত।

আর যখন স্বাগতিকরাই কোনো নির্দিষ্ট জাতির ক্রীড়াবিদদের রাজনৈতিক কারণে ছেঁটে ফেলতে চান, তখন নতুন স্বাগতিক খোঁজা ছাড়া আমাদের কোনো বিকল্প থাকে না।’

মালোয়েশিয়া সংখ্যাগরিষ্ট মুসলিম দেশ। ইহুদিবাদী ইসরাইলের সঙ্গে মালয়েশিয়ার কূটনৈতিক সম্পর্ক নেই এবং দেশটির জনগণ ও সরকার সব সময় আন্তর্জাতিক অঙ্গনে ফিলিস্তিনি জাতির প্রতি সমর্থন জানিয়ে এসেছে।

এর আগে মালয়েশিয়ার প্রধানমন্ত্রী মাহাথির মোহাম্মাদ বলেছেন, আগামী গ্রীষ্মে তার দেশে অনুষ্ঠেয় বিশ্ব প্যারা সুইমিং চ্যাম্পিয়নশিপ খেলতে ইসরাইলি ক্রীড়াবিদদের মালয়েশিয়ায় প্রবেশ করতে দেয়া হবে না।

মাহাথির বলেন, ইহুদিবাদী ইসরাইলের দমনপীড়নের মোকাবিলায় ফিলিস্তিনি জনগণের প্রতি সমর্থন জানানো মালয়েশিয়ার অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ নীতি। এই নীতির আলোকে চলতি বছর মালয়েশিয়ায় অনুষ্ঠেয় ওয়ার্ল্ড প্যারা সুইমিং চ্যাম্পিয়নশিপে অংশ নিতে ইসরাইলি সাঁতারুদের ভিসা দেয়া হবে না।

মালয়েশিয়ার কুচিং শহরে আগামী ২৫ জুলাই বিশ্ব প্যারা সুইমিং চ্যাম্পিয়নশিপ শুরু হয়ে তা ৪ আগস্ট পর্যন্ত চলার কথা ছিল।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here