৯৯ রানে ফিরলেন মুশফিক, ১ রানের আক্ষেপ থেকে গেলো

0
577

পাকিস্তানের বিপক্ষে সুপার ফোর পর্বে নিজেদের তৃতীয় ম্যাচে টস জিতে ব্যাটিংয়ে বাংলাদেশ। শুরুটা হয়েছে এশিয়া কাপে দলের ধারাবাহিকতা মেনে! শুরুতেই নেই ৩ উইকেট। এরপর মুশফিক-মিঠুনের ১৪৪ রানের জুটিতে পাল্টা চ্যালেঞ্জ ছুড়েছে বাংলাদেশ। মিঠুন ৬০ ও মুশফিক ৯৯ রানে আউট হয়েছেন। ৪২ ওভার শেষে বাংলাদেশ ২০২/৬।

এশিয়া কাপে আজ সুপার ফোর পর্বে নিজেদের তৃতীয় ম্যাচে পাকিস্তানের বিপক্ষে টস জিতে ব্যাটিংয়ে বাংলাদেশ। সাকিবের আঙুলের চোটের জন্য তড়িঘড়ি করে দেশ থেকে উড়িয়ে আনা ওপেনার সৌম্য সরকার সুযোগ পেয়েছেন এ ম্যাচে। নাজমুল হোসেন শান্তর জায়গায় খেলছেন তিনি। সাকিবের জায়গায় মুমিনুল হক ফিরেছেন দলে। আর স্পিনার নাজমুলের জায়গায় খেলছেন রুবেল হোসেন। ১৬ বছরে মাত্র দ্বিতীয়বার বাঁ হাতি স্পিনার ছাড়া খেলছে বাংলাদেশ।

দলে ফিরে আসাটা সৌম্য উদ্‌যাপন করেছেন শূন্য দিয়ে। এক ম্যাচ ভালো খেলে আবার হারিয়ে যাওয়ার ধারাবাহিকতা ধরে রেখে লিটন দাস করেছেন ৬। দুই ওপেনারের মাঝখানে আউট হয়েছেন মুমিনুল। আউট হয়েছেন ৫ রানে। একাদশে ফেরাটা মুমিনুল কিংবা সৌম্য কাজে লাগাতে পারেননি; তবে কাজে লাগিয়েছেন জুনায়েদ খান। মোহাম্মদ আমিরের বদলে জায়গা পাওয়া জুনায়েদের শিকার হয়েছেন দুই ওপেনার। মুমিনুলকে ফিরিয়েছেন শাহিন আফ্রিদি। ৪.২ ওভারে ১২ রানে নেই ৩ উইকেট। সেখান থেকে ইনিংস মেরামতে নেমেছেন মুশফিক-মিঠুন। ২৬ ওভার শেষে স্কোর ৩ উইকেটে ১১। মুশফিক ৫৭ আর মিঠুন ৪৪ রানে ব্যাট করছেন।

এবারের এশিয়া কাপের প্রথম ওয়ানডেতেও এই দুজন মিলে প্রতিরোধ গড়েছিলেন। মুশফিক সেদিন ক্যারিয়ার সেরা ইনিংস খেলেছিলেন। আজও এগিয়ে যাচ্ছেন এশিয়া কাপে নিজের তৃতীয় সেঞ্চুরির দিকে। মিঠুন অবশ্য ৬০ রান করে আউট হয়েছেন হাসান আলীর বলে। এর আগে চতুর্থ উইকেটে গড়েছেন ১৪৪ রানের জুটি।

ইমরুলকে দ্রুত ফেরালেন শাদাব

আবার লেগ স্পিন সামলানোর ভাবনা থেকে মিডল অর্ডারে খেলানো হয়েছিল ইমরুল কায়েসকে। এবার ব্যর্থ বাঁহাতি এই ব্যাটসম্যান। রিস্ট স্পিনে খেলা প্রথম বলেই এলবিডব্লিউ হয়ে গেছেন তিনি।

শাদাব খানের স্কিড করা স্টাম্পের বল ব্যাটে খেলতে পারেননি ইমরুল। আম্পায়ার এলবিডব্লিউ দিয়ে নন স্ট্রাইকার মুশফিকুর রহিমের সঙ্গে কথা বলে রিভিউ না নিয়ে ফিরে যান তিনি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here